Powered by Ajaxy
Nov 3, 2019
138 Views
Comments Off on “ইউটিউব নাকি ফেসবুক” কোনটা থেকে আয় করবেন

“ইউটিউব নাকি ফেসবুক” কোনটা থেকে আয় করবেন

Written by

অনলাইন থেকে প্রায় সকলে আয় করতে চান কিন্তু  তাদের মধ্যে কেও আয় করতে পারেন আবার কেও

পারেন না। যারা কাজ করছেন কিন্তু এখনো পযর্ন্ত আপনার চ্যানেলটি মনিটাইজেশন পারেননি তাদের

জন্য আজকে আমার এ লেখা।আপনারা জানেন ইউটিউবের মতো ফেসবুক নতুন একটি প্রোগ্রাম চালু

করেছে যেটা ফেসবুক ক্রিয়েটর।সেই ফেসবুক ক্রিয়েটর এর মাধ্যমে আপনি ফেসবুক পেজে ভিডিও

আপলোড করার মাধ্যমে আপনি সেই ভিডিওগুলো মনিটাইজেশন করতে পারবেন এবং সেই ভিডিও

থেকে ইনকাম করতে পারবেন।

আজকে আমরা আলোচনা কবরো আপনি কোন সাইট থেকে দূরত্ব আয় করতে পারবেন “ইউটিউব

নাকি ফেসবুক” এবং তাড়াতাড়ি মনিটাইজেশন করতে পারবেন।

ইউটিউব চ্যানেল:

ইউটিউবে একসময় কিছু ভিডিও আপলোড করার পরে মনিটাইজেশন এর জন্য এপ্লাই করলে ইউটিউব

মনিটাইজেশন দিয়ে দিত।কিন্তু বর্তমান সময়ে ইউটিউবে প্রচুর পরিমাণে কন্টেন্ট ক্রিয়েটর হওয়া কারনে

ইউটিউবে প্রচুর পরিমাণে নিয়মকানুন দিয়েছে।এবং ইউটিউবে  অনেকেই ভালো ভিডিও আবার আজে

বাজে ভিডিও আপলোড দিয়ে থাকেন তার জন্য ইউটিউব বর্তমান সময়ে একটি নিয়ম তৈরি করেছে।যে

নিয়ম হলো আপনার চ্যানেলে 1 হাজার সাবস্ক্রাইবার থাকতে হবে এবং 4000 মিনিট ওয়াচ টাইম থাকতে

হবে 1 বছরের মধ্যে তাহলে আপনি মনিটাইজেশন এর জন্য এপ্লাই করতে পারবেন এবং সেই এপ্লাই করা

চ্যানেলটি ইউটিউব এর গাইডলাইন রিভিউ করবে।রিভিউ করার পর আপনার চ্যানেলটি মনিটাইজেশন

পাবার যোগ্য হলে তাহলে আপনার চ্যানেল মনিটাইজেশন অন করে দেওয়া হবে আর না হয় আপনাকে

রিজেক্ট করে দেওয়া হবে পরবর্তীতে আবার এপ্লাই করার জন্য এবং আপনাকে এক মাস সময় দেওয়া

হবে।এটা হচ্ছে ইউটিউবের মনিটাইজেশন নিয়মকানুন বর্তমান সময়ের জন্য এই নিয়ম যেকোনো সময়

আবার আপডেট হতে পারে।

ফেসবুক পেজ :

ফেসবুক এর জন্য আপনার একটি ফেসবুক পেজ থাকতে হবে এবং সেই পেজের মধ্যে আপনার 10 হাজার

ফলোয়ার থাকতে হবে।এই 10 হাজার ফলোয়ার থাকার পরে আপনার ফেসবুক পেজে আপনি যে ভিডিও

গুলো আপলোড করবেন সেই ভিডিও গুলোর 3 মিনিটের চেয়ে বেশি সময়ের ভিডিও হতে হবে এবং সেই

ভিডিও গুলোতে 1 মিনিট ওয়াচ টাইম থাকতে হবে তাহলে ইউটিউব কমিউনিটি আপনার ভিডিওতে

একটি ভিউ ধরে নিবে।এভাবে আপনার ফেসবুক পেজে 60 দিনের মধ্যে 30 হাজার ভিউ হতে হবে তাহলে

আপনার ফেসবুক মনিটাইজেশন এর জন্য এপ্লাই করতে পারবেন।

তারপরে ফেসবুক কমিউনিটি গাইডলাইন আপনার পেজটি রিভিউ করে দেখবে যদি আপনার পেজের

সবকিছু ঠিকঠাক  থাকে তাহলে আপনাকে মনিটাইজেশন দিয়ে দেওয়া হবে।

বাংলাদেশ মনিটাইজেশন অনেকেই পেয়ে গেছেন এবং তারা সকলে ফেসবুক থেকে ভিডিও মনিটাইজেশন

এর মধ্যে ইনকাম শুরু করে দিয়েছেন।

কোনটা করবেন:

ইউটিউব এবং ফেসবুক দুটি হচ্ছে একটি সোশ্যাল মিডিয়া আর দুটি কোম্পানি এডভার্টাইসমেন্ট এর মধ্য

দিয়ে তাদের পাবলিশারদের কে একটা এমাউন্ট দিয়ে থাকে।আপনি এর যেকোন একটি করতে পারেন।

আপনি যদি আগে থেকেই  ইউটিউবে কাজ করে থাকেন তাহলে আমি বলব আপনি ইউটিউবে কাজ করে

যান । খুব দ্রুত সফল হতে পারবেন।কারন এক সঙ্গে দুটো কাজ করতে পারবেন না। আর যারা এখনো

শুরু করেননি তাদের জন্য আমি বলবো ফেসবুকে শুরু করেন কারন ফেসবুকে দূরত্ব মনিটাইজেশন পেয়ে

যেতে পারেন। এবং আয় করতে পারবেন।কারন ফেসবুকের ব্যবহারকারীর সংখ্যা অনেকটাই বেশি যার

মাধ্যমে আপনি এখান থেকে ভাল কিছু করতে পারবেন খুব দ্রুত।ফেসবুকের বিজিটর সংখ্যা ওঅনেক

বেশি।একনো পযর্ন্ত তেমন নিয়ম কানুন দেওয়া হয়নি। তাই আপনি খুবিই দূরত্ব এখান থেকে আয় করতে

পারবেন।

ভাল থাকবেন আশা করে আপনাদের ভাল লেগেছে।

Comments are closed.