Powered by Ajaxy
Mar 26, 2021
83 Views
Comments Off on একটি NID কার্ড দিয়ে কয়টি বিকাশ একাউন্ট খোলা যায়? [জেনে নিন]

একটি NID কার্ড দিয়ে কয়টি বিকাশ একাউন্ট খোলা যায়? [জেনে নিন]

Written by

আসসালামুআলাইকুম বন্ধুরা আজকের এই টপিকটা অত্যন্ত ইম্পরট্যান্ট আমরা অনেকেই আছি যারা একটি এনআইডি বা ভোটার আইডি কার্ড দিয়ে অনেকগুলো বিকাশ একাউন্ট খুলে ফেলি নিজের অজান্তেই, কিন্তু এটা সঠিক নাকি ভুল আপনি একটা ভোটার আইডি কার্ড দিয়ে সর্বোচ্চ কয়টা এবং সর্বনিম্ন কয়টা বিকাশ একাউন্ট খুলতে পারবেন সেটা আজকের এই ব্লগে আমি আপনাদের সাথে একদম বিস্তারিত আলোচনা করব। যদি আপনি অনেকগুলো বিকাশ একাউন্ট খুলে থাকেন ইতিমধ্যে তাহলে সেক্ষেত্রে আপনি কি করবেন এবং আপনি একের অধিক একাউন্ট খুলতে পারবেন কিনা এবং আপনার সকল অ্যাকাউন্ট গুলো বন্ধ হয়ে যাবে কিনা ইত্যাদি সকল বিষয় আজকের এই ব্লগে আমি আপনাদের সাথে আলোচনা করবো তাই ধৈর্য ধরে সম্পূর্ণ ব্লগটা পড়তে থাকুন।

একটা ভোটার আইডি কার্ড দিয়ে আপনি একটা বিকাশ একাউন্ট খুলতে পারবেন। এবং এটাই হল সঠিক নিয়ম। আপনি চাইলে একের অধিক একাউন্ট খুলতে পারবেন তবে সে অ্যাকাউন্টগুলো রিস্ক হয়ে যাবে যে কোন সময় আপনার যেকোন অ্যাকাউন্ট বন্ধ হয়ে যেতে পারে। যদি আপনার অ্যাকাউন্টের তথ্য হালনাগাদ এর জন্য ডাকে তাহলে আপনার অনেকগুলো একাউন্ট যদি আপনি খোলেন ১টা ভোটার আইডি কার্ড এর আন্ডারে তাহলে আপনার সব অ্যাকাউন্ট গুলো বাদ দিয়ে আপনার একটা অ্যাকাউন্ট রাখতে হবে। অথবা যদি এমন হয় আপনার অনেকগুলো একাউন্ট আপনি খুলেছেন প্রত্যেকটা অ্যাকাউন্টে যথেষ্ট পরিমাণ টাকা আছে এবার আপনার অনেকগুলো একাউন্ট খোলার কারণে আপনার সবগুলো অ্যাকাউন্ট বন্ধ করে দিলো।

এবং আপনার বিকাশ হেড অফিসে ডাকলো এরপর আপনি হেড অফিসে গেলেন যাওয়ার পরে তারা বল্লো যে একটা ভোটার আইডি কার্ড দিয়ে একটা বিকাশ একাউন্ট খোলা যাবে আপনি অনেকগুলো কেন খুলেছেন এবং এখন আপনার যে কোন একটা অ্যাকাউন্ট রাখতে হবে বাকি গুলো বন্ধ হয়ে যাবে, সেক্ষেত্রে তখন আপনাকে যেকোন একটা একাউন্ট বেছে নিতে হবে বাকি সবগুলো অ্যাকাউন্ট বন্ধ হয়ে যাবে😭 এবং বাকি একাউন্টে টাকা গুলো কিন্তু আপনার নষ্ট হয়ে যাচ্ছে। তাই অবশ্যই বিকাশ একাউন্ট খোলার সময় যাচাই-বাছাই করে একটা ভোটার আইডি কার্ড দিয়ে মাত্র একটা অ্যাকাউন্ট খুলবেন। আপনি যদি আগে আপনার ভোটার আইডি কার্ড দিয়ে একটা বিকাশ একাউন্ট খুলে থাকেন আপনি চাচ্ছেন যে এই একাউন্টটা অন্য একটা সিম এ নিয়ে যাওয়ার জন্য সে ক্ষেত্রে কি করতে হবে,

সরাসরি আপনাকে বিকাশের হেড অফিসে যেতে হবে বিকাশ হেড অফিসে যাওয়ার পরে আপনার পূর্বের অ্যাকাউন্ট টা ডিলিট করতে হবে তারপরে নতুন সিম দিয়ে আপনি একই ভোটার আইডি কার্ড দিয়ে পুনরায় আবার বিকাশ একাউন্ট খুলতে পারবেন। কিন্তু একই সময় একটা ভোটার আইডি কার্ড দিয়ে অনেকগুলো বিকাশ একাউন্ট আপনি কখনোই করতে পারবেন না। খুলতে আপনি পারবেন তবে সেটা ইলিগ্যাল হবে যেকোনো সময় আপনার সমস্ত অ্যাকাউন্ট গুলো বন্ধ হয়ে যেতে পারে এবং আপনার একাউন্টের যতগুলো টাকা আছে সব টাকা গুলো একদমই চলে যেতে পারে, তাই অবশ্যই এই বিষয়গুলো খুব সতর্কতার সাথে মেনে চলবেন।

বিকাশ বর্তমান সময়ে এমন একটা মোবাইল ব্যাংকিং হয়ে দাঁড়িয়েছে বিকাশের বিকল্প আরো অনেকগুলো রয়েছে যেরকম বিকাশের পাশাপাশি নগদ এবং রকেট বেশি প্রচলিত, তবে বিকাশের এজেন্ট গুলো অনেক বেশি যেকোনো জায়গায় সচরাচর বিকাশ পাওয়া যায়, যার জন্য অধিকাংশ মানুষ কিন্তু আমরা বিকাশ মোবাইল ব্যাংকিং ব্যবহার করে থাকি

এজন্য আপনাদের সাথে আজকে শেয়ার করলাম যে একটা ভোটার আইডি কার্ড একটার বেশি বিকাশ একাউন্ট খোলা যাবে কিনা, বা খোলা টা লিগ্যাল কিনা,,

আমি দেখেছি অনেকেই একটা ভোটার আইডি কার্ড দিয়ে অনেকগুলো বিকাশ একাউন্ট খুলেন তো এই বিষয়টা সম্পূর্ণ ভুল। আপনি যদি আরো বেশি সিওর হতে চান তাহলে বিকাশের হেল্পলাইন> 16247 এ কল করে বিষয়টা জানতে পারেন অথবা বিকাশের যে ফেসবুক পেজ রয়েছে আপনি চাইলে ফেসবুক পেজেও যে কোন একটা পোস্টে কমেন্ট করতে পারেন যে আমি একটা ভোটার আইডি কার্ড দিয়ে কয়টা বিকাশ একাউন্ট খুলতে পারবো দেখবেন ওনারা রিপ্লাইতে আপনাকে বলে দিবে যে একটা ভোটার আইডি কার্ড দিয়ে আপনি মাত্র একটা বিকাশ একাউন্ট খুলতে পারবেন।

আশা করতেছি আজকের এই ব্লগে আমি আপনাদের বিস্তারিত বুঝাইতে পারছি যে একটা এনআইডি বা ভোটার আইডি কার্ড বা জাতীয় পরিচয় পত্র দিয়ে আপনি কয়টি বিকাশ একাউন্ট খুলতে পারবেন যদি বিষয়টা আপনি একদম শিওর হয়ে থাকেন তাহলে আমাদের ব্লকটা বন্ধুদের সাথে শেয়ার করবেন এবং পরবর্তীতে এরকম আরো ইনফরমেশন পাওয়ার জন্য আমাদের ওয়েবসাইটের নিয়মিত ভিজিট করতে একদমই ভুলবেন না ভালো থাকবেন নিজের খেয়াল রাখবেন! ধন্যবাদ।

Article Categories:
Tips & Tiricks

Comments are closed.