Powered by Ajaxy
Mar 31, 2021
191 Views
Comments Off on একদম সস্তায় ৩০,০০০ এমএএইচ ব্যাটারির Mi Power Bank Boost Pro লঞ্চ করলো Xiaomi

একদম সস্তায় ৩০,০০০ এমএএইচ ব্যাটারির Mi Power Bank Boost Pro লঞ্চ করলো Xiaomi

Written by

বর্তমান সময়ে স্মার্টফোনে বেশি ক্যাপাসিটির ব্যাটারি থাকলেও, কোথাও ভ্রমণের সময় আমরা হাত ধরতে পাওয়ার ব্যাংক সাথে রাখি। কারণ রাস্তা ঘাটে চার্জিংয়ের সঠিক ব্যবস্থা নাও থাকতে পারে। চাহিদার কারণে স্মার্টফোন ও অ্যাক্সেসরিজ কোম্পানিগুলি প্রায় প্রতিমাসে নতুন নতুন পাওয়ার ব্যাংক লঞ্চ করে। যেমন আজ চীনা স্মার্টফোন কোম্পানি, Xiaomi ভারতে ৩০,০০০ এমএএইচ ব্যাটারিযুক্ত Mi Power Bank Boost Pro এর ওপর থেকে পর্দা সরিয়েছে। এটির দাম রাখা হয়েছে ৩,৪৯৯ টাকা। তবে শাওমির এই ডিভাইসটি বর্তমানে ১,৯৯৯ টাকায় ক্রাউডফান্ডিং প্ল্যাটফর্মে তালিকাভুক্ত। আশা করা হচ্ছে, ১৫ মে থেকে এই ডিভাইসটির শিপিং শুরু হবে।

Mi Power Bank Boost Pro- এর উল্লেখযোগ্য ফিচারসমূহ

এমআই পাওয়ার ব্যাংক বুস্ট প্রো তে আছে ৩০,০০০ এমএএইচ লিথিয়াম পলিমার ব্যাটারি এবং ১৮ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং-এর সুবিধা। এটির সাহায্যে একসাথে তিনটি ডিভাইসে চার্জ দেওয়া যাবে। এতে একটি টাইপ-সি পোর্ট ও দুটি টাইপ-এ পোর্ট আছে। এছাড়া আছে দুটি ইনপুট পোর্ট (মাইক্রো- ইউএসবি এবং টাইপ-সি)। এই পাওয়ার ব্যাংকটিতে চার্জ দেওয়ার জন্য মাইক্রো-ইউএসবি বা টাইপ-সি কেবিলের যে-কোনো একটি ব্যবহার করা যেতে পারে। এছাড়াও, এটি পাওয়ার ডেলিভারি ৩.০ সাপোর্ট করে, অর্থাৎ এটির সাহায্যে টাইপ-সি থেকে টাইপ-সি চার্জিং সম্ভব।

এই পাওয়ার ব্যাংকটিকে চার্জ করার ক্ষেত্রে উল্লেখযোগ্য বিষয়টি হল, এটি ২৪ ওয়াট পর্যন্ত চার্জিং সাপোর্ট করবে। এছাড়া এটি কম পাওয়ারের চার্জিং- এর জন্য স্মার্ট পাওয়ার ম্যানেজমেন্ট অফার করে। পাওয়ার বাটনটিকে ডবল প্রেস করে এই ফিচারটিকে সক্রিয় করা যেতে পারে।

Xiaomi জানিয়েছে যে, এতে ১৬ স্তরীয় অত্যাধুনিক চিপ প্রোটেকশন আছে। যেহেতু এই পাওয়ার ব্যাংকটিতে উচ্চক্ষমতাসম্পন্ন ৩০,০০০ এমএএইচ ব্যাটারি আছে, তাই অভ্যন্তরীণ বা আন্তর্জাতিক কোনোপ্রকার উড়ানেই এটি বহনযোগ্য নয়।

Xiaomi-র ক্রাউডফান্ডিং কীভাবে কাজ করে?

Xiaomi, Mi Power Bank Boost Pro- এর জন্য ৫০০০ ইউনিট-এর লক্ষ্য নির্ধারণ করেছে, এবং একবার সেই লক্ষ্যে পৌঁছে গেলে প্রকল্পটি সফল বলে ঘোষণা করা হবে। যদি কোনো ক্রেতা ক্রাউডফান্ডিং প্রকল্পকে সাপোর্ট করে, কিন্তু নির্ধারিত সময়ের মধ্যে কোম্পানি কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্যে পৌঁছোতে না পারে, তাহলে টাকা ফেরতযোগ্য। এছাড়াও, যদি ক্রেতারা তাদের মত ও মন পরিবর্তন করে, তাহলে শিপিং-এর আগে তারা সবসময় অর্ডার বাতিল করতে পারে।

Article Categories:
Electronics

Comments are closed.