Mar 25, 2021
334 Views
Comments Off on করোনা ভ্যাকসিনের জন্য নিবন্ধন করুন [মোবাইল দিয়ে] – Corona Vaccine Registration Bangladesh

করোনা ভ্যাকসিনের জন্য নিবন্ধন করুন [মোবাইল দিয়ে] – Corona Vaccine Registration Bangladesh

Written by

আসসালামুআলাইকুম বন্ধুরা আজকে আমি আপনাদেরকে দেখাবো ঘরে বসে নিজেই নিজের মোবাইল দিয়ে কিভাবে করোনা ভাইরাস ভ্যাকসিন এর জন্য আবেদন করবেন। ইতিমধ্যে আপনারা অনেকেই জেনে গেছেন যে ইংল্যান্ড থেকে ভারতের মাধ্যমে আমাদের দেশে করোনা ভাইরাসের ভ্যাকসিন এসেছে যেগুলো সরকারিভাবে ফ্রিতে দেওয়া হচ্ছে। তবে এই করোনা ভ্যাকসিন গুলো সব ধরনের মানুষ বা জনসাধারণের জন্য এখনও ওইভাবে দেয়া হচ্ছেনা। কিছু সীমাবদ্ধতা রয়েছে শুধুমাত্র সেই মানুষগুলো এই করোনা ভ্যাকসিন ফ্রিতে নিতে পারবে এখন। পাশাপাশি কিভাবে আপনি মোবাইল দিয়ে করোনা ভ্যাকসিন এর জন্য আবেদন করবেন ঘরে বসেই বা কিভাবে আপনি করোনা ভ্যাকসিন দিবেন সবকিছু আজকের এই ব্লগে আমি আপনাদের সাথে বিস্তারিত আলোচনা করে দিবো তাই পুরা ব্লগটা কন্টিনিউ করতে থাকেন।

প্রথমত সব শ্রেণীর মানুষ কিন্তু করোণা ভ্যাকসিন পাবেনা। করোনার ভ্যাকসিন রেজিস্ট্রেশন করার জন্য আপনার কিছু যোগ্যতার প্রয়োজন হবে। প্রথমত হয়তো আপনাকে ৪০ বছরের বেশি অথবা ৪০ বছর বয়স্ক হতে হবে, তা না হলে নিচের যোগ্যতাগুলোর যেকোন একটা অবশ্যই থাকতে হবে করোনা ভাইরাসের ভ্যাকসিন নেওয়ার জন্য রেজিস্ট্রেশন করার জন্য।

করোনা ভ্যাকসিন রেজিস্ট্রেশনের যোগ্যতা:

নাগরিক নিবন্ধন (৪০ বছর ও তদুর্ধ)
স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয় এর সকল কর্মকর্তা-কর্মচারী।
অনুমােদিত বেসরকারি ও প্রাইভেট স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা-কর্মচারী।
প্রত্যক্ষভাবে সম্পৃক্ত সকল সরকারি ও বেসরকারি স্বাস্থ্য সেবা কর্মকর্তা-কর্মচারী।
বীরমুক্তিযােদ্ধা ও বীরঙ্গনা।
সম্মুখ সারির আইন – শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী।
সামরিক বাহিনী।
রাষ্ট্র পরিচালনার নিমিত্ত অপরিহার্য কার্যালয়।
সম্মুখ সারির গণমাধ্যমকর্মী।
নির্বাচিত জনপ্রতিনিধি।
সিটি কর্পোরেশন ও পৌরসভার সম্মুখ সারির কর্মকর্তা-কর্মচারী।
ধর্মীয় প্রতিনিধিগণ (সকল ধর্মের)
মৃতদেহ সৎকার কার্যে নিয়ােজিত ব্যক্তি।
জরুরি বিদ্যুৎ, পানি, গ্যাস, পয়ঃনিষ্কাশন ও ফায়ার সার্ভিস এর সম্মুখ সারির সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারী।
রেল স্টেশন, বিমান বন্দর ও নৌ বন্দরের সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারী।
জেলা ও উপজেলাসমূহে জরুরি জনসেবায় সম্পৃক্ত সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারী।
ব্যাংক কর্মকর্তা-কর্মচারী।
প্রবাসী অদক্ষ শ্রমিক।
জাতীয় দলের খেলােয়াড়।

যদি আপনার বয়স ৪০ বছর অথবা তার বেশি হয় তাহলে আপনি করোনা ভ্যাকসিন এর জন্য আবেদন করতে পারবেন আর যদি ৪০ বছর বয়স না হয় তাহলে ওইটা বাদ এ নিচে যতগুলো শর্ত রয়েছে এখান থেকে যেকোন একটা যদি আপনি থাকেন তাহলে আপনি করোনা ভাইরাসের ভ্যাকসিন এর জন্য রেজিস্ট্রেশন করতে পারবেন বা আবেদন করতে পারবেন। এখন কথা হলো করোনা ভ্যাকসিন আবেদন করতে কি কি লাগবে এবং আপনি কিভাবে করোনা ভ্যাকসিন এর জন্য আবেদন করবেন। করোনা ভ্যাকসিন এর জন্য আবেদন করার জন্য প্রথমত আপনাকে একটা ওয়েবসাইটে যেতে হবে।

গুগোল এ গিয়ে আপনি surokkha gov bd লিখে সার্চ করবেন। সার্চ করার পরে একদম প্রথমে যে ওয়েবসাইটটা চলে আসবে এই সাইটের উপরে ক্লিক করে দিবেন। এই সাইট থেকে আপনি করোনা ভ্যাকসিনের জন্য রেজিস্ট্রেশন করতে পারবেন।

প্রথমত: করোনা ভ্যাকসিনের জন্য রেজিস্ট্রেশন করতে হলে প্রথমত আপনার বয়স ৪০ বছর অথবা উপরের যেকোন শর্ত পূরণ করতে হবে।

দ্বিতীয়ত: আপনার ভোটার আইডি কার্ড লাগবে।

তৃতীয়ত: আপনার মোবাইল নাম্বার লাগবে অর্থাৎ আপনার রেজিস্ট্রেশন সম্পন্ন হলে যে নাম্বারে কল করে আপনাকে তারা ভ্যাকসিন এর জন্য ডাকবে।

চতুর্থত: আপনার ব্যক্তিগত কিছু তথ্য লাগবে।

এবার রেজিস্ট্রেশন করার জন্য আপনি এই ওয়েবসাইটে যাওয়ার পরে একদম প্রথমেই দেখতে পারবেন: ভ্যাকসিন এর জন্য নিবন্ধন করুন। সরাসরি আপনি এখানে ক্লিক করে দিবেন। এখানে ক্লিক করে দেওয়ার পরে আপনার বয়স অথবা আপনি যে কাজ করেন সেটা সিলেক্ট করে দিবেন। এরপর আপনার ভোটার আইডি কার্ডের নাম্বার দিতে বলবে, আপনার জন্ম তারিখ দিতে বলবে, আপনার এড্রেস দিতে বলবে আপনার মোবাইল নাম্বার দিতে হবে, আপনি কোন জায়গা থেকে করোনা ভ্যাকসিন সংগ্রহ করবেন বা এই টিকা গ্রহণ করবেন সেরকম লোকেশন সিলেক্ট করতে হবে, এগুলো সিলেক্ট করার পরে সবকিছু দিয়ে সাবমিট করে দিলে আপনার রেজিস্ট্রেশন করা হয়ে যাবে। উপরের লিংকে ক্লিক করে আপনি সব ইনফরমেশন যখন যেখানে যা চাচ্ছে সঠিকভাবে দিবেন দিয়ে সামনে এগোতে থাকবেন দেখবেন আপনার রেজিস্ট্রেশন সফল ভাবে হয়ে যাবে।

যেহেতু উপরে কোন শর্তের সাথে আমি এখনো সম্পৃক্ত নই পাশাপাশি আমার বয়স চল্লিশ হয় নাই তাই আমি রেজিস্ট্রেশন করে আপনাদেরকে দেখাতে পারলাম না। তবে এগুলো একদমই সহজ আপনারা পারবেন আমি জানি। এভাবে যখন আপনি রেজিস্ট্রেশন করে রাখবেন এরপর আপনার রেজিস্ট্রেশন টাকে তারা রিভিউ করবে দেখবে যদি সবকিছু সঠিক থাকে বা আপনি যদি ভ্যাকসিনের জন্য সিলেক্ট হয়ে থাকেন তাহলে কিছুদিন পরে আপনি যে নাম্বার দিয়েছিলেন ওই নাম্বারে তারা কল করবে, কল করার পরে আপনাকে ডাকবে এবং আপনার লোকেশন বলে দিবে যে আপনি আসেন এই লোকেশন থেকে আপনার টিকা বা ভ্যাকসিন আপনি দিয়ে যান। তো আপনি সরাসরি সেই জায়গায় চলে যাবেন এবং সেখানে গিয়ে ফ্রিতে করোনা ভ্যাকসিন দিয়ে আসতে পারবেন। এভাবেই মোবাইলের মাধ্যমে করোনা ভাইরাস ভ্যাকসিন এর জন্য বা কোভিট-19 ভ্যাকসিন এর জন্য আবেদন করবেন।

যদি আজকের এই ব্লগটা আপনার ভালো লেগে থাকে বন্ধুদের সাথে শেয়ার করবেন তাহলে তারাও কোভিট-19 ভ্যাকসিন এর জন্য আবেদন করতে পারবে।

Article Categories:
Others

Comments are closed.

close