Powered by Ajaxy
Mar 23, 2021
299 Views
Comments Off on দুর্দান্ত ফিচার ও আকর্ষণীয় লুক Poco X3 Pro লঞ্চ হল অবিশ্বাস্য দামে

দুর্দান্ত ফিচার ও আকর্ষণীয় লুক Poco X3 Pro লঞ্চ হল অবিশ্বাস্য দামে

Written by

Poco X3 Pro ৩০ মার্চ ভারতে পা রাখার আগে আজ ইউরোপে মার্কেটে লঞ্চ হল। বলার অপেক্ষা রাখেনা এই ফোনটি গতবছর লঞ্চ হওয়া Poco X3 এর আপগ্রেড ভার্সন। পোকো এক্স৩ প্রো যে ফিচারের সাথে এসেছে তা দেখে একে ফ্ল্যাগশিপ কিলার বলে অভিহিত করলে খুব একটা ভুল হবে না। কর্নিং গোরিলা গ্লাস ৬ প্রোটেকশন, ৭ এনএম স্ন্যাপড্রাগন ৮৭০ প্রসেসর, UFS 3.1 স্টোরেজ (UFS 2.1 স্টোরেজের থেকে ১৯৮ গুন দ্রুতগতির), কুলিংয়ের জন্য লিকুইডকুল টেকনোলজি ১.০, হ্যাপটিক্স এর জন্য Z-Axis লিনিয়ার ভাইব্রেশন মোটর, NFC : কী নেই পোকো এক্স৩ প্রো ফোনে!

Poco X3 Pro দাম

পোকো এক্স৩ প্রো ফোনটি দুটি স্টোরেজ ভ্যারিয়েন্টে এসেছে। এর ৬ জিবি র‌্যাম ১২৮ জিবি স্টোরেজের দাম পড়বে ২৪৯ ইউরো (প্রায় ২১,৪৯০ টাকা) ও ৮ জিবি র‌্যাম ২৫৩ জিবি স্টোরেজের দাম ২৯৯ ইউরো (প্রায় ২৫,৮০০ টাকা)। তবে ২৪ মার্চ থেকে ১ এপ্রিলের মধ্যে ফোনটি কিনলে ৫০ ইউরো (প্রায় ৪,৩০০ টাকা) ছাড় পাওয়া যাবে। ফোনটি ফ্যান্টম ব্ল্যাক, ফ্রস্ট ব্লু, ও মেটাল ব্রোঞ্জ কালার অশনে পাওয়া যাবে। উল্লেখ্য, পোকো এক্স৩ প্রো ৩০ মার্চ ভারতে লঞ্চ হচ্ছে।

Poco X3 Pro স্পেসিফিকেশন

ডিজাইনের নিরিখে পোকো এক্স৩ ও পোকো এক্স৩ প্রো-র মধ্যে কোনো হেরফের পাবেন না। আঙুলের ছাপ দূর করার জন্য সেই ক্রোমা ডিজাইন নতুন ফোনটিতে পাবেন। এটি পাঞ্চ হোল ডিজাইনের ৬.৬৭ ইঞ্চি ফুলএইচডি আইপিএস এলসিডি ডিসপ্লে সহ এসেছে। যা ১২০ হার্টজ রিফ্রেশ রেট ও ২৪০ হার্টজ টাচ স্যাম্পলিং রেট সাপোর্ট করবে। হাত থেকে পড়ে গেলেও ডিসপ্লের সুরক্ষা নিশ্চিত করতে রয়েছে কর্নিং গোরিলা গ্লাস ৬ প্রোটেকশন।

ফটোগ্রাফির জন্য Poco X3 Pro-র রিয়ার প্যানেলে থাকছে কোয়াড ক্যামেরা সেটআপ। ক্যামেরাগুলি হল ৪৮ মেগাপিক্সেল Sony IMX582 সেন্সর (এফ/১.৭৯ অ্যাপারচার), ১১৯ ডিগ্রি ফিল্ড অফ ভিউ সহ ৮ মেগাপিক্সেল আল্ট্রাওয়াইড ক্যামেরা (এফ/২.২ অ্যাপারচার), ২ মেগাপিক্সেল ম্যাক্রো সেন্সর ও ২ মেগাপিক্সেল ডেপ্থ সেন্সর। সেলফির জন্য ফোনের সামনে আছে এফ/২.২ অ্যাপারচার সহ ২০ মেগাপিক্সেল ক্যামেরা। এই ক্যামেরায় আছে ডুয়াল ভিডিও, ভিডিও ক্লোনস, নাইট মোডের সাথে আল্ট্রা-ওয়াইড এবং নাইট মোডের সেলফি ফিচার।

পোকো এক্স৩ ফোনে অক্টা কোর স্ন্যাপড্রাগন ৮৬০ প্রসেসর ব্যবহার করা হয়েছে। সাথে আছে এড্রেনো ৬৪০ জিপিইউ। ফোনটি ৮ জিবি পর্যন্ত LPDDR4X র‌্যাম, ২৫৬ জিবি পর্যন্ত UFS 3.1 স্টোরেজ পাওয়া যাবে। মাইক্রোএসডি কার্ডের মাধ্যমে এর স্টোরেজ ১ টিবি পর্যন্ত বাড়ানো যাবে।

পাওয়ার ব্যাকআপের জন্য ফোনে ৫,০২০ এমএএইচ ব্যাটারি থাকছে। যা ৩৩ ওয়াট ফাস্ট চার্জিং সাপোর্ট করবে। এই চার্জার ৫৯ মিনিটে ফোনকে ফুল চার্জ করে দেবে। কোম্পানির দাবি ফুল চার্জে ফোনটির ব্যাটারি ১১ ঘন্টা গেমিং, ১৮ ঘন্টা ভিডিও প্লেব্যাক, ১১৭ ঘন্টা মিউজিক অফার করবে। ফোনটিতে অ্যান্ড্রয়েড ১১ ভিত্তিক এমআইআউই (MIUI) ১২ কাস্টম স্কিন প্রি-ইনস্টলড থাকবে। তাপ নিয়ন্ত্রণের জন্য এতে LiquidCool টেকনোলজি ১.০ ব্যবহার করা হয়েছে।

Article Categories:
Mobile

Comments are closed.