Saturday , November 16 2019
Home / News / ধর্ষণ করে এসে ফ্রেন্ড রিক্যুয়েস্ট : কনডম তো ছিল না, পিল খাও

ধর্ষণ করে এসে ফ্রেন্ড রিক্যুয়েস্ট : কনডম তো ছিল না, পিল খাও

মদ্যপ অবস্থায় একজন কিশোরীকে ধর্ষণ করেন এক ব্যক্তি। অস্ট্রেলিয়ার ফোরশোরের পার্থ পার্কে ধর্ষণের ঘটনায় ওই ব্যক্তির সাড়ে পাঁচ বছরের কারাদণ্ড হয়েছে। জানা গেছে, ফাল্লাহ জর্জ নামের ওই ব্যক্তির সঙ্গে কিশোরীর সাক্ষাৎ ঘটেছিল সেখানেই।

ওই দিন সেখানে বেশ কয়েকজন একসঙ্গে মদ্যপান করেছিলেন তারা। ২০১৬ সালের ডিসেম্বরে ঘটনার দিন মদ্যপানের পর কিশোরীর সঙ্গে হাঁটছিলেন ওই ব্যক্তি। আজ বৃহস্পতিবার শুনানির সময় উল্লেখ করা হয়, মদ্যপ অবস্থায় ওই কিশোরীকে জড়িয়ে ধরে প্রথমে চুম্বন করেছিলেন জর্জ। আর কিশোরীকে বলেছিলেন বিষয়টি উপভোগ করতে।

কিশোরী ততক্ষণে বুঝতে পারে, তার বন্ধুরা সেখান থেকে চলে গেছে। সেই সুযোগে জর্জ তাকে ধর্ষণ করেন। ধর্ষণের পর একটি ফাস্টফুডের দোকানের সামনে কিশোরীকে ফেলে যান তিনি। সেখান থেকে কিশোরীকে উদ্ধার করে নিয়ে যায় তার এক বন্ধু।

কিশোরী পরে দেখতে পায়, তারা গায়ে কাদা লেগে আছে, চুল এলোমেলো হয়ে গেছে এবং স্কার্টেও রক্তের দাগ আছে। একপর্যায়ে তাকে হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। তবে চারমাস পর্যন্ত এ ব্যাপারে পুলিশের কাছে কোনো ধরনের অভিযোগ করা হয়নি।

ধর্ষণের ঘটনার পরই জর্জের সঙ্গে তার ফেসবুকে বন্ধুত্ব হয়। কথোপকথনও চলতে থাকে। সেই সময় জর্জ জানান, তিনি ধর্ষণের সময় কনডম ব্যবহার করেননি। কিশোরী যেন পিল খেয়ে নেন। সেই সঙ্গে কিশোরীর কাছ থেকে তিনি ক্ষমাও চেয়ে নেন।

ওই ধর্ষক লেখেন, আমি যদি এটা করে থাকি, আমি দুঃখিত, ঠিক আছে? আমি জানি যে, দুঃখিত বললেই কোনোকিছু পরিবর্তন হয়ে যাবে না। কিন্তু দয়া করে ক্ষমা করে দাও। আমার দ্বারা এ ধরনের ঘটনা আর ঘটবে না। কারণ, এটা একটা ভুল এবং আমি নিজের ভুলের জন্য মন থেকে ক্ষমা চাইছি।

বিচারক বলেন, ওই কিশোরী এ ঘটনায় হতাশার মধ্যে পড়েছে, শারীরিক এবং মানসিকভাবে আঘাত পেয়েছে। তার আচরণেও সহিংস হয়ে ওঠার বিষয়টা ঢুকে গেছে। ধর্ষিত হওয়ার পর মাদকাসক্তও হয়ে পড়েছে।

এজন্য ধর্ষককে দোষী সাব্যস্ত করে সাজা শোনানো হয়েছে।

Check Also

সৈকতজুড়ে বিরল ‘বরফের ডিম’!

অস্বাভাবিক এক আবহাওয়ার জেরে ফিনল্যান্ডের উপকুল বরাবর তৈরি হয়েছে ডিমের আকৃতির হাজার হাজার বরফপিন্ড। ফিনল্যান্ড …