Sunday , June 26 2022
Home / Internet / মুঠোফোনে নেটওয়ার্ক বার বেশি দেখালেই কি নেটওয়ার্ক ভালো?

মুঠোফোনে নেটওয়ার্ক বার বেশি দেখালেই কি নেটওয়ার্ক ভালো?

ফোনে নেটওয়ার্ক নির্দেশক বার বেশি দেখালে ধরে নেওয়া হয় সিগন্যালের মান ভালো। অর্থাৎ ফোনে নির্ঝঞ্ঝাট কথা বলা যাবে, কল ড্রপ হবে না, ইন্টারনেট সংযোগে ভালো গতি পাওয়া যাবে অর্থাৎ ফোনের কাজগুলো নির্বিঘ্নে সারা যাবে।

ক্ষেত্রবিশেষে সে কথা সত্য। ডিজিটাল ট্রেন্ডসের প্রতিবেদনে তো বলা হয়েছে, বেশির ভাগ ক্ষেত্রেই তা সত্য। তবে সব ক্ষেত্রে নয়।

নেটওয়ার্ক বার কী নির্দেশ করে?

যে সেলফোন টাওয়ারের সঙ্গে আপনার মুঠোফোন যুক্ত, তা থেকে কত ডেসিবেল সিগন্যাল পাচ্ছে, তা নির্দেশ করে নেটওয়ার্ক বার। অর্থাৎ এটি নেটওয়ার্ক সিগন্যালের উপস্থিতির নির্দেশক, নেটওয়ার্কের মানের নয়। অন্যভাবে বললে সিগন্যাল কতটা শক্তিশালী, তা প্রকাশ করা হয় বারের মাধ্যমে।

মুঠোফোনে সিগন্যাল স্ট্রেংথ দেখানো হয় ডেসিবেল-মিলিওয়াট বা ডিবিএমে। ডিবিএম ঋণাত্মক মানে দেখায়। সিনেটের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, সচরাচর -৫০ ডেসিবেল মানে চমৎকার সিগন্যাল, আর -১১৩ মানে সিগন্যাল স্ট্রেংথ খুব খারাপ। আর এই সংখ্যা শূন্যের দিকে যত বেশি হবে, সিগন্যাল তত শক্তিশালী হবে। অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোনে সেটিংস > অ্যাবাউট ফোন > স্ট্যাটাস > সিম স্ট্যাটাস > সিগন্যাল স্ট্রেংথে গেলে হুবহু পরিমাপটা পাবেন। বাড়ির বিভিন্ন স্থানে গেলে এই সংখ্যায় পরিবর্তন দেখতে পাবেন। এই সংখ্যাটিই বারের মাধ্যমে প্রকাশ করা হয়।

তবে কি বেশি বার মানে ভালো নেটওয়ার্ক?

আপনি যদি কোনো নেটওয়ার্ক টাওয়ারের কাছে থাকেন, তবে সর্বোচ্চ নেটওয়ার্ক বার দেখাবে মোবাইল ফোনে। কিন্তু একসঙ্গে অনেক মুঠোফোন যদি ওই টাওয়ারে যুক্ত থাকে, আর সেটা যদি ধারণক্ষমতার চেয়ে বেশি হয়, তবে প্রত্যেক ব্যবহারকারীর ক্ষেত্রে নেটওয়ার্কের মান খারাপ হতে পারে। এতে কল ড্রপ বেড়ে যেতে পারে, আবার ইন্টারনেটের গতিও কম মনে হতে পারে।

আরেকটি বিষয় হলো টু–জি, থ্রি–জি কিংবা ফোর–জি নেটওয়ার্কে বার একই হলেও ডেটার গতির তারতম্য হবে। আবার নেটওয়ার্কের গতি মুঠোফোন নেটওয়ার্ক সেবাদাতার ওপরও বহুলাংশে নির্ভর করে। সব মিলিয়ে বলা যায়, নেটওয়ার্ক নির্দেশক বার বেশি দেখালেই নেটওয়ার্কের মান উন্নত নয়।

সুত্রঃ প্রথমআলো

Check Also

Teletalk 5g পরীক্ষামূলক চালাবে ১৬ ডিসেম্বর

  টেক শহর কনটেন্ট কাউন্সিলর : জাতীয় তথ্যপ্রযুক্তি দিবস ১২ ডিসেম্বরে পরীক্ষামূলকভাবে ফাইভজি নেটওয়ার্কে প্রবেশ …