Mar 30, 2021
359 Views
Comments Off on ম্যালওয়্যার সম্পর্কে জানুন

ম্যালওয়্যার সম্পর্কে জানুন

Written by

ম্যালওয়্যার কি?- Malware virus in bangla

ম্যালওয়্যার একটি বিপদজনক সফটওয়্যার। এটি যে কোন প্রকারের সফটওয়্যার হতে পারে যা আপনার কম্পিউটার বা অন্য কোন ডিভাইসে আপনার অনুমতি ছাড়াই ম্যালওয়্যার তার কাজ পরিচালনা করতে পারে। সেই কার্যক্রমও হতে পারে আপনার উপর নজরদারি করা, আপনার কম্পিউটারের কর্মক্ষমতাও কমিয়ে দেওয়া, অথবা আপনার ডিভাইসে থাকা ডাটা অথবা আপনার হার্ডওয়্যারেরও ক্ষতি সাধন করা। Malware virus in bangla সর্ম্পকে জানতে পড়তে থাকুন আমাদের এর লেখাটি।

আপনার ব্যবহৃত ডিভাইস গুলোর ভেতরও একটি প্রসেসর রয়েছে, এবং এটিতে ফাইল ট্রান্সফার করাও সম্ভব (অতিরিক্ত কোন ডিভাইস যুক্ত করে বা ওয়াইফাই, ব্লুটুথ বা ইন্টারনেট সহ যে কোন মাধ্যমেও) এবং এই ডিভাইসে ম্যালওয়্যার তার কাজ পরিচালনা করতে পারে। সেটা আপনার কম্পিউটার, মোবাইল, ট্যাবলেট, স্মার্টওয়াচ, ওয়াইফাই রাউটার, ই-বুক রিডার সহ অনেক কিছুইও হতে পারে। আপনার স্মার্ট ডিভাইসের ব্যবহৃত চার্জার দ্বারাও ম্যালওয়্যার আক্রান্ত করে। What is Computer Virus in bangla?

ভাইরাস, ট্রোজান, স্ক্রিপ্ট সহ অনেক প্রকারের ম্যালওয়্যারের নাম আপনিও শুনে থাকতে পারেন, যা বিভিন্ন উপায়ে স্মার্ট ডিভাইস সমুহকেও আক্রমণ করতে পারে। কিন্তু, ২০২০ সালে এসে ম্যালওয়্যার ছড়ানোর মাধ্যম আর সীমাবদ্ধও নেই। ম্যালওয়্যার ছড়ানোর জন্য অনেক উপায় ব্যবহার করা হলেও এটা থেকে বেঁচে থাকার জন্য নিয়মনীতি প্রায় সমান।

প্রশ্ন হলো ম্যালওয়্যার আপনার কি কি ক্ষতি করতে পারে-

1: আপনার তথ্য বা ডাটাও চুরি করাঃ আপনার পাসওয়ার্ড, ক্রেডিট কার্ডের ইনফরমেশন, গোপনীয় ডকুমেন্টস সহ অনেক তথ্যও ম্যালওয়্যার চুরি করতে পারে। আপনি মনে করতে পারেন যে, আপনার গোপনীয় কোন ডকুমেন্টস নেই বা ক্রেডিট কার্ডেও তেমন কিছু নেই।

এই বিষয় গুলি আপনার না থাকলেও অনেক বড় বড় রাজনীতিবিদের, বড় কোন প্রতিষ্ঠানের কর্মকর্তাদের, গোয়েন্দা বিভাগে কাজ করা ব্যক্তিদের, মিডিয়া জগতে কাজ করা মডেলদের, শিল্পী সহ অনেকেরই এমন অনেক ডকুমেন্টসও থাকে যা চুরি হলে অনেক বড় ক্ষতির মুখে পড়তে হয়। অনেক সময় দেখবেন অনেক শিল্পী বা বিখ্যাত ব্যক্তিদের গোপন ফোন রেকর্ড বা ছবি বা ভিডিও ফাঁস হয়েও থাকে। এইগুলো সবগুলো তথ্য চুরির ফলাফলও।

2: আপনার ডাটা বা তথ্যের ক্ষতি করা অথবা এটি লুকিয়ে রেখে আপনার কাছে অর্থও দাবি করাই কিছু ম্যালওয়্যার আছে যা আপনার ডকুমেন্ট সমুহকে এনক্রিপ্টেডও করে রাখবে। অর্থাৎ ফাইল গুলো আপনার কম্পিউটারেই থাকবে কিন্তু আপনি তা খুলতে করতে পারবেন না।

হ্যাকার এটিকে ওপেন করার উপযোগী বা ডিক্রিপ্ট করার জন্য আপনার কাছে অর্থও চাইতে পারে। এই ফাইল গুলো ডিক্রিপ্ট করার জন্য এনক্রিপশন কী (এক ধরণের পাসওয়ার্ড) এর প্রোয়োজন হয়। অনেক সময় দেখা যায় হ্যাকার অর্থ গ্রহণ করার পরেই ইউজার কে এনক্রিপশন কী দেয় না।

ফলে ফাইল এনক্রিপ্টেড অবস্থায় থেকে যায়। আপনার ভাগ্য খারাপ হলে এমনও হতে পারে যে, পুরো ফাইল এনক্রিপ্টেড না হয়ে সম্পুর্ণ রুপে ডিলিটও করা হয়েছে।

3: জরুরী সেবা প্রদানে বাধা দেওয়াঃ কিছু ম্যালওয়্যারও রয়েছে যা ফ্যাক্টরী, পাওয়ার প্লান্ট, ইলেক্ট্রিক গ্রিড, ব্যাংক, সার্ভার স্টেশন, সিকিউরিটি সিস্টেম সহ অন্যান্য জরুরী সেবা প্রদানকারী প্রতিষ্ঠান কে টার্গেটও করে। আপনি হলিউড বা বলিউড মুভিতেও দেখে থাকবেন, ব্যাংকের কোন কম্পিউটার হ্যাক করে কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়ে যাচ্ছে, অথবা সিকিউরিটি সিস্টেম হ্যাক করে বড় বড় ক্রাইমও করা হচ্ছে। এইগুলো মুভির বাইরে বাস্তব জগতেও বিদ্যমান হয়। malware virus in bangla সর্ম্পকে জানতে ও এর থাকে মুক্তি পেতে কি কি করনীয় তা জানুন।

যে সকল ভুলের কারনে আমাদের স্মার্ট ডিভাইসে ম্যালওয়্যারের ঝুকি থেকে যায়:-

১.সফটওয়্যার আপডেট ও সিস্টেম আপডেট অবহেলা করাও প্রতিটা সফটওয়্যার (উইন্ডোজ, ম্যাক ওএস বা লিনাক্স ডিস্ট্রো সমুহ) এ কিছু দুর্বলতাও (যা বাগ নামে পরিচিত) থাকে যার কারনে আপনার ডিভাইসের হ্যাকারদের আক্রমণও করা সহজ হয়। সেই সফটওয়্যারের ডেভেলপার গণ সিকিউরিটি আপডেটের মাধ্যমে সেই দুর্বলতা বা ত্রুটি সমুহ ঠিক করারও চেষ্টা করেন। আপনার সফটওয়্যার আপডেট বা সিস্টেম আপডেট না করার কারনেও আপনার ডিভাইসের ত্রুটি থেকেই যায়।

২.অপরিচিত কারো দেওয়া বা অপরিচিত কোন উৎস হতে পাওয়া ফাইল ওপেন করা। আপনাকে হয়তও কোন পরিচিত বা অপরিচিত ব্যক্তি ফাইল দিলো এবং আপনি তা ওপেন করলেন। বা কোথাও থেকে আপনি কোন অফারের লিংক পেয়ে সেটিতে ক্লিকও করলেন। এরকমও হতে পারে সেই সকল ফাইল বা লিংক এমন ভাবে তৈরী করা হয়েছে যা আপনার ডিভাইসে কোন ম্যালওয়্যার ইন্সটল করে দিতেও পারে।

৩.সন্দেহজনক বা ক্র্যাক সফটওয়্যার ব্যবহার কর। এই ক্যাটাগরীতে থাকতেও পারে ফ্রি ভিডিও প্লেয়ার, কোনো কমার্শিয়াল সফটওয়্যার এর ক্র্যাক ভার্শন, সেই সফটওয়্যার গুলো ডাউনলোড স্পিড বৃদ্ধি করে দাবি করতেও পারে, এবং সেই সাথে আপনার সিস্টেমের পারফরমেন্স বৃদ্ধি করবে বলে দাবিও করতে পারে বা অন্যান্য সন্দেহপূর্ণ দাবি করতে পারে।

আপনি যখনই ইন্টারনেট থেকে কোন কিছু ফ্রি তে ডাউনলোড করার চেষ্টা করেন তখনও একটা সম্ভাবনা থেকে যায় আপনার কম্পিউটারের ম্যালওয়্যার দ্বারা আক্রান্ত হওয়ার। এছাড়াও আনঅফিসিয়াল সোর্স থেকে উইন্ডোজ আইসএও (ISO) বা লিনাক্সের কোন ডিস্ট্রিবিউশনের আইএসও বা ম্যাকওএস এর ডিএমজি ইমেজ বা কোন কাস্টম রম বা কোন ফার্মওয়্যার ফাইলও ডাউনলোড করে ব্যবহার করার কারনে সিস্টেমে ম্যালওয়্যারও চলে আসতে পারে। আশা করি Malware virus in bangla সর্ম্পকে আপনাদের জানাতে পারেছি।

অনেক সময় সার্ভিস সেন্টারে কম্পিউটারের সফটওয়্যার সার্ভিসের সময় ব্লটওয়্যার / ম্যালওয়্যার ইন্সটল করে দিতেও পারে। মনে রাখবেন, পৃথিবীতে কোন কিছুই ফ্রি তে নয় । প্রতিটা জিনিসের একটি সুমুল্য রয়েছে। সেই সুমুল্য যেন আপনার প্রাইভেসির বিনিময়ে না হয়।

Article Categories:
Tips & Tiricks

Comments are closed.

close