Sunday , December 15 2019
Home / News / সতীর্থকে পিটিয়ে পাঁচ বছর নিষিদ্ধ শাহাদাৎ

সতীর্থকে পিটিয়ে পাঁচ বছর নিষিদ্ধ শাহাদাৎ

ম্যাচ চলাকালে সতীর্থ আরাফাত সানি জুনিয়রকে পেটানোর ঘটনায় পেসার শাহাদাৎ হোসেন রাজীবকে ৫ বছরের জন্য নিষিদ্ধ করেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)। তবে, এর মধ্যে দুই বছরের নিষেধাজ্ঞা হলো স্থগিত নিষেধাজ্ঞা। তার মানে, আগামী ৩ বছর শাস্তি ভোগ করতে হবে শাহাদাৎকে। এই সময়ে তিনি ক্রিকেটীয় কোনো কার্যক্রমে অংশ নিতে পারবেন না।  শুধু নিষেধাজ্ঞাই নয়, শাহাদাৎকে তিন লাখ টাকা জরিমানাও করেছে বিসিবি।

২০১৫ সালে গৃহকর্মী মাহফুজা আক্তার হ্যাপিকে নির্যাতনের ঘটনায় আলোচনায় এসেছিলেন একসময় বাংলাদেশ জাতীয় দলের হয়ে নিয়মিত খেলা পেসার শাহাদাৎ হোসেন। ওই ঘটনায় তার বিরুদ্ধে মামলা হয়েছিল এবং প্রায় দুই মাস জেলও খেটেছিলেন তিনি।

এবার ক্রিকেট মাঠে সতীর্থকে পিটিয়ে আলোচনায় এসেছেন এই পেসার। জাতীয় ক্রিকেট লিগের (এনসিএল) ম্যাচে গত রবিবার খুলনার শেখ আবু নাসের স্টেডিয়ামে সতীর্থ আরাফাত সানি জুনিয়রকে পেটান তিনি। এনসিলে শাহাদাৎ হোসেন খেলছিলেন ঢাকা বিভাগের হয়ে।

গত ১৬ নভেম্বর খুলনায় শুরু হয়েছে ঢাকা বিভাগ ও খুলনা বিভাগের মধ্যকার ম্যাচ। রবিবার ঢাকা বিভাগ তখন ফিল্ডিং করছিল। আরাফাত সানি জুনিয়রকে শাহাদাৎ হোসেন বল শাইন করে দিতে বলেছিলেন। কিন্তু তাতে অনীহা প্রকাশ করেন সানি। এরপরই সানিকে চড়-থাপ্পড় মারতে থাকেন শাহাদাৎ। আম্পায়ার এবং মাঠে থাকা অন্য খেলোয়াড়রা সানিকে রক্ষা করেন।

এই ঘটনায় সাথে সাথেই শাহাদাৎ হোসেনকে মাঠ থেকে বের করে দেন আম্পায়াররা। তাকে এই ম্যাচে নিষিদ্ধ করা হয়। ফলে ১০ জন নিয়ে খেলতে হয় ঢাকা বিভাগকে।

এই বিষয়ে ম্যাচ রেফারি আখতার আহমেদ বিসিবির টেকনিক্যাল কমিটির কাছে প্রতিবেদন জমা দেন। প্রতিবেদনে তিনি ঘটনাটিতে ‘লেভেল-৪’ হিসেবে উল্লেখ করেন। এই অপরাধের শাস্তি কমপক্ষে এক বছর ও সর্বোচ্চ পাঁচ বছরের নিষেধাজ্ঞা।

Check Also

‘বিন’ বাজাচ্ছেন শিক্ষক, নাগিন ড্যান্স করছেন শিক্ষিকা !!

ভারতের রাজস্থানের এক শিক্ষিকা এখন ইন্টারনেটে ভাইরাল হয়ে গিয়েছেন। তার নাগিন ড্যান্স এখন নেটিজেনদের চর্চার …