Friday , September 30 2022
Home / Tips & Tiricks / যেকোন ঘরের গোপন ক্যামেরা খুঁজে বের করার ৫টি উপায়

যেকোন ঘরের গোপন ক্যামেরা খুঁজে বের করার ৫টি উপায়

প্রযুক্তি একদিকে আমাদের জন্য বয়ে নিয়ে আসছে সুফল আবার অন্যদিকে কিছু ব্যবহারকারী এটি ব্যবহার করে আমাদের জন্য কুফল বয়ে আনছে। বর্তমান সময়ে প্রযুক্তির অন্যতম আবিষ্কার গোপন ক্যামেরাকে কাজে লাগিয়ে এক শ্রেণির অসাধু লোক মেয়েদের ওয়াশরুম সহ বিভিন্ন স্থান থেকে মেয়েদের আপত্তিকর ছবি তুলে তাদেরকে ব্ল্যাকমেইল করছে। কিছু কিছু ক্ষেত্রে ছেলেদের বেলায়ও এমনটি ঘটছে। এ ধরনের অসাধু লোকদের খুব সহজে প্রতিরোধ করা না গেলেও কিছুটা সতর্ক ও সাবধানতা অবলম্বন করা যেতে পারে।

গোপন ক্যামেরা সনাক্ত
খুব সহজে নির্ণয় করা যায় রুমে গোপন ক্যামেরার অস্তিত্ব আছে কিনা। এর জন্য আপনার লাগবে একটা মোবাইল ফোন (সিম এক্টিভ করা) যেখান থেকে কল করা যায়। এবার ট্রায়াল রুমে (যেখানে কাপড় পাল্টাবেন) ঢুকে আপনার মোবাইল থেকে কাউকে কল দেয়ার চেষ্টা করুন। যদি কল করা যায় ও নেটওয়ার্ক থাকে তাহলে গোপন ক্যামেরা নেই। আর যদি কল করা না যায় ও নেটওয়ার্ক হঠাৎ করে ডাউন হয়ে যায় তাহলে অবধারিত ভাবে বুঝবেন সেখানে গোপন ক্যামেরা রয়েছে।

গোপন ক্যামেরার সাথে ফাইবার অপটিক্যাল ক্যাবল থাকে। সিগন্যাল ট্রান্সফার করার সময় এর ইন্টারফিয়ারেন্স হতে থাকে। যার জন্য মোবাইল নেটওয়ার্ক ওই জায়গায় কাজ করে না। এভাবেই আপনি পারেন গোপন ক্যামেরার নোংরামি থেকে বাঁচতে।

শপিংমলের ড্রেসিং/ট্রায়াল রুমে (যেখানে মেয়েরা কাপড় পাল্টায় বা ফিটিং চেক করে) সেখানে যে আয়না থাকে সেটা আসল নাও হতে পারে, এটিও গোপন ক্যামেরার মতই মারাত্মক । প্রযুক্তির অপব্যবহারে আসল আয়নার মাঝে এখন যুক্ত হয়েছে নকল আয়না, যাকে বলা হয় দ্বিমুখী আয়না । এই আয়নায় আপনি আপনার চেহারা দেখতে পারবেন, কিন্তু ভুলেও বুঝতে পারবেন না যে অন্যপাশ হতে কেউ আপনাকে দেখছে! অথবা আয়নার অন্য পাশে লাগানো আছে অত্যাধুনিক কোন ক্যামেরা।

আপনার আঙ্গুল আয়নার উপর রাখুন। যদি আপনার আঙ্গুলের মাথা প্রতিবিম্ব আঙ্গুলের মাথার সাথে না লাগে (মাঝে যদি ফাঁকা থাকে) তাহলে আয়না আসল। আর যদি আঙ্গুলের মাথা প্রতিবিম্বের মাথার সাথে লেগে যায়, তার মানে আয়না নকল! এটা আসল আয়না না, একটা দ্বিমুখী আয়না! যার অন্যপাশে থেকে আপনাকে দেখা যাবে, কিন্তু আপনি তাকে দেখতে পাবেন না। মানে অন্যপাশে থেকে কেউ আপনাকে দেখছে বা ভিডিও করছে!

কারণ আসল আয়নার সিলভার প্রলেপ থাকে আয়নার পিছনে, যার জন্য আপনার আঙ্গুল ও প্রতিবিম্বের মাঝে ফাঁকা থাকবে আয়নার পুরুত্বের জন্য। আর নকল আয়নার (দ্বিমুখী) সিলভার প্রলেপ থাকে আয়নার সামনে, যার জন্য আপনার আঙ্গুলের ছাপ আপনার আঙ্গুলের প্রতিবিম্বের সাথে লেগে যাবে কারন মাঝে কোনো বাধা নেই।

Check Also

শিশুর ইন্টারনেট ব্যবহার নিয়ন্ত্রণের ৫ উপায়

করোনা মহামারির পুরো সময়টাতে অনলাইনে চলেছে স্কুল, কলেজের ক্লাস ও পরীক্ষা। সারাক্ষণ না চাইলেও শিশুদের …