Powered by Ajaxy
Feb 24, 2020
145 Views
Comments Off on Cloud hosting কি || ক্লাউড হোস্টিং কিভাবে কাজ করে || Cloud hosting কেন ব্যবহার করবেন

Cloud hosting কি || ক্লাউড হোস্টিং কিভাবে কাজ করে || Cloud hosting কেন ব্যবহার করবেন

Written by

ক্লাউড হোস্টিং সম্পূর্ণ ভিন্ন ধরনের হোস্টিং। আপনি যদি বিভিন্ন ওয়েব হোস্টিং কোম্পানীর ওয়েবসাইট ব্রাউজ করে থাকেন, তবে অবশ্যই ক্লাউড হোস্টিং এর নাম শুনেছেন। শেয়ার্ড, ওয়ার্ডপ্রেস, ভিপিএস ও ডেডিকেটেড হোস্টিংয়ের পাশাপাশি আরেকটি হোস্টিং রয়েছে, যার নাম ক্লাউড হোস্টিং।

ক্লাউড হোস্টিং এমন একটি হোস্টিং যা বিভিন্ন কম্পিউটারের সমন্বয়ে তৈরি একটি ক্লাস্টার্ড সার্ভার। এটি এমন একটি মডেল যা ভার্সুয়াল্লি ইউজ করার মাধ্যমে একটি ওয়েবসাইটের যাবতীয় সব রিসোর্চ ভিন্ন ভিন্ন ফিজিক্যাল সার্ভারে সংরক্ষণ করে রাখা হয়। ফলে, একটি সার্ভার ডাউন থাকলে কিংবা ক্র্যাশ করলে, আরেকটি সার্ভার ওয়েবসাইটটিকে যাবতীয় তথ্য-উপাত্ত সাপ্লাই দিয়ে থাকে।

ক্লাউড হোস্টিং এর জন্যে একটি ক্লাউড কম্পিউটার থাকে যেখানে অন্যান্য সব কম্পিউটারের ডাটা সুচারুরূপে সংরক্ষণ করা হয়। এটি একটি ওয়েল ব্যালেন্সড্, হাইলি সিকিউরড্ ও পূর্ণাঙ্গ রিসোর্চ সংবলিত সার্ভার। এক কথায়, ক্লাউড হোস্টিং হচ্ছে অসংখ্য কম্পিউটারের সমন্বয়ে তৈরি একটি নেটওয়ার্ক।

ক্লাউড হোস্টিং কিভাবে কাজ করে?

ক্লাউড হোস্টিং যেভাবে কাজ করে তা বোঝার জন্যে গুগল সার্চকে উদাহরণ হিসেবে নেয়া যেতে পারে। আমরা যখন গুগলে কোন কিছু সার্চ দেই, সার্চ ইঞ্জিন অসংখ্য কম্পিউটারের নেটওয়ার্কে (ক্লাউড) ঢুকে সঠিক তথ্যটি নিয়ে আসে। ক্লাউড হওয়ায় এর জন্যে গুগলের সার্ভারে কোন রকম লোড পড়ে না।

ক্লাউড হোস্টিংয়ের সুবিধা
১. যে কোন হোস্টিংই কোন না কোন কারণে ডাউন হয়ে যেতে পারে। কিন্তু ক্লাউড হোস্টিং কখনোই ডাউন হওয়ার সম্ভাবণা রাখে না।

২. ক্লাউড হোস্টিংয়ে ডাটা ডেলিভারি হয় অত্যন্ত দ্রততার সঙ্গে। ফলে, ক্লাউড হোস্টিংয়ে থাকা ওয়েবাসইটের স্পিড থাকে সুপার ফাস্ট।

৩. ক্লাউড হোস্টিংয়ে যে কোন ধরনের ভিডিও স্ট্রিমিং ওয়েবসাইট হোস্ট করা যায় যা অন্যান্য হোস্টিং সার্ভিসে হোস্ট করা খুবই রিস্কি।

৪. ক্লাউড হোস্টিংয়ে সিডিএন সুবিধা থাকায় এখানে থাকা ওয়েবসাইট ভিজিট করলে ভিজিটরের কাছে ডাটা চলে আসে সবচেয়ে কাছাকাছি থাকা হোস্টিং সার্ভার থেকে।

৫. ক্লাউড হোস্টিং সার্ভারে থাকা ডাটা অ্যাক্সেস করা যায় পৃথিবীর যে কোন প্রান্ত থেকে যে কোন কম্পিউটার ব্যবহার করে।

৬. ক্লাউড হোস্টিংয়ে থাকা ওয়েবসাইটের সিকিউরিটি নিয়ে বিন্দু মাত্র সংশয়ের অবকাশ থাকে না।

৭. আপনি যদি কোন ভিডিও স্ট্রিমিং ওয়েবসাইট হোস্ট করতে চান, তবে আপনার জন্যে সবচেয়ে ভাল হবে ক্লাউড হোস্টিং ব্যবহার করা। এমনকি, কোন সফট্ওয়্যার বা গেম রান করতে চাইলেও ব্যবহার করতে পারেন ক্লাউড হোস্টিং সার্ভিস।

ক্লাউড হোস্টিং সম্পর্কে বিস্তারিত জেনেছেন। আশা করি, বুঝতে পেরেছেন এটি কি, কিভাবে কাজ করে আর এর সুবিধাগুলো কি কি।

Article Tags:

Comments are closed.