Thursday , December 12 2019
Home / গুগল / গুগলে যে ১০ জিনিস খুঁজবেন না

গুগলে যে ১০ জিনিস খুঁজবেন না

কোনো তথ্য দরকার? হুটহাট করেই গুগলের সার্চ বক্সে গিয়ে সে বিষয়ে খোঁজ করা শুরু করেন অনেকেই। কেউ খোঁজেন খাবারের রেসিপি কেউবা খোঁজেন অনলাইন ব্যাংকিং, অর্থ স্থানান্তর বা অনলাইনে নানা ওষুধ। যাঁরা সবকিছুতেই গুগলের ওপর নির্ভর করেন, তাঁদের মনে রাখতে হবে এসব কনটেন্ট কিন্তু গুগল নিজে তৈরি করে না। গুগল কেবল একটি অনলাইন প্ল্যাটফর্ম দেয় যেখানে বিভিন্ন ওয়েবসাইটের তথ্য দেখা যায়। তাই গুগলে দেখা সব তথ্য যে সঠিক ও নির্ভুল হবে, এটা মনে করার কোনো কারণ নেই। গুগলে দেখা অনেক জিনিস আপনার জন্য ক্ষতির কারণ হতে পারে। গুগলের অনুসন্ধান বাক্সে কয়েকটি বিষয় খোঁজা একেবারেই বন্ধ করা উচিত। এতে অনলাইনে আপনি নিরাপদ থাকবেন। জেনে নিন এমন ১০টি বিষয় সম্পর্কে:

অনলাইন ব্যাংকিং: আপনি যে ব্যাংকে লেনদেন করেন তাদের অনলাইন ঠিকানাটা মনে রাখবেন। সঠিক ইউআরএল বা লিংক ছাড়া অনলাইনে খুঁজে তাদের সাইট বা সেবা সম্পর্কে জানার চেষ্টা করবেন না। অনেক সময় ব্যাংকের ওয়েবসাইটের আদলে ফিশিং সাইট তৈরি করে রাখে দুর্বৃত্তরা। আপনি ভুলে এমন কোনো সাইটে গিয়ে নিজের আইডি-পাসওয়ার্ড দিয়ে ফেললেই সর্বনাশ। অনলাইন ব্যাংকিং সম্পর্কিত তথ্য তাই গুগলে সার্চ না করাই ভালো।

গ্রাহক সেবার নম্বর: দুর্বৃত্তরা অনলাইনে বিভিন্ন সেবার ভুয়া নম্বর ও ওয়েবসাইট দিয়ে রাখে। অনেকেই গুগলে গিয়ে ভুয়া সাইটের নম্বর নিয়ে ফোন করে প্রতারিত হন। গুগলে এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি স্ক্যামের শিকার হন গ্রাহক সেবার নম্বর খোঁজ করতে গিয়ে। তাই গুগল থেকে কোনো গ্রাহক সেবার ফোন নম্বর নিয়ে প্রতারণা এড়িয়ে চলতে সতর্ক থাকুন।

অ্যাপ ও সফটওয়্যার ডাউনলোড: কোন দরকারি সফটওয়্যার খুঁজতে গুগলে গিয়ে প্রতারণার ফাঁদে পড়তে পারেন। মোবাইল অ্যাপ বা সফটওয়্যার ডাউনলোড করতে সরাসরি অ্যান্ড্রয়েডের জন্য গুগল প্লে বা আইফোনের জন্য অ্যাপ স্টোরে যান। গুগলে সার্চ করে কোনো অ্যাপ ডাউনলোড করবেন না। কারণ, দুর্বৃত্তরা কারসাজি করে অনেক সফটওয়্যার ডাউনলোডের জন্য প্রলুব্ধ করতে পারে। মনে রাখতে হবে, ভুয়া অ্যাপ বা সফটওয়্যার ডাউনলোড করলে আপনার ডিভাইসে ম্যালওয়্যার চলে আসতে পারে। এতে আপনার ব্যক্তিগত তথ্য চুরি হতে পারে।

ওষুধ: আপনি কোনো সমস্যায় ভুগলে সরাসরি চিকিৎসকের সঙ্গে কথা বলুন। গুগলে দেওয়া তথ্য সব সময় সঠিক হয় না। গুগলে দেখা তথ্য অনুযায়ী ওষুধ কিনে বিপদে পড়তে পারেন। তাই স্পর্শকাতর বিষয়গুলোতে গুগল সার্চের ওপর নির্ভর করা উচিত নয়।

শেয়ার বাজারের তথ্য: স্বাস্থ্য বিষয়ক তথ্যের মতোই আর্থিক বিষয়গুলোতেও গুগলের ওপর নির্ভর করা মোটেও ঠিক নয়। আর্থিক সফলতার বিষয়গুলো একেকজনের ক্ষেত্রে একেক রকম হতে পারে। বিনিয়োগের ক্ষেত্রে গুগল সার্চের তথ্যের ওপর নির্ভর না করাটাই আপনার জন্য সবচেয়ে ভালো হবে।

সরকারি তথ্য: ব্যাংকের ওয়েবসাইটের মতোই সরকারি নানা সাইটের ভুয়া তথ্য তৈরি করে রাখে দুর্বৃত্তরা। স্ক্যামারদের প্রাথমিক লক্ষ্য থাকে সরকারি বিভিন্ন সাইটের আদলে সাইট তৈরি করে ব্যবহারকারীকে বোকা বানানো। গুগল সার্চে দেখা অনেক ওয়েবসাইট প্রকৃত মনে হলেও পরে তা প্রতারণা বলে প্রমাণিত হয়। গুগলে সার্চ করার বদলে সংশ্লিষ্ট ওয়েবসাইটের ইউআরএল জেনে নিয়ে সেখানে গেলে নিরাপদ থাকা যায়।

সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যম: সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমের লগইন পেজটি কখনো গুগলে সার্চ করবেন না। গুগলের অ্যাড্রেস বক্সে সামাজিক যোগাযোগের মাধ্যমের ওয়েবসাইটের লিংকটি লিখে সেখানে যাবেন। গুগল সার্চের মাধ্যমে গেলে আপনি ফিশিং আক্রমণের মুখে পড়তে পারেন। আপনি ভুয়া কোনো ওয়েবসাইটে চলে যেতে পারেন।

গুগলে অফারের খোঁজ: অনেকেই গুগলে গিয়ে অনলাইন সাইটগুলোর অফারের খোঁজ করেন। গুগলে এমন হাজারো অফার পাবেন। এসব অফারের ফাঁদে ফেলে আপনার গুরুত্বপূর্ণ তথ্য হাতিয়ে নিতে পারে দুর্বৃত্তরা। তাই গুগলে সরাসরি কোনো অফারের খোঁজ করবেন না। যে সাইটে কেনাকাটা করতে চান সরাসরি তাদের ওয়েবসাইট থেকে পণ্য কিনুন।

বিনা মূল্যের অ্যান্টিভাইরাস: অনেকেই গুগলে গিয়ে ‘ফ্রি অ্যান্টিভাইরাস’ খোঁজ করেন। গুগলে ‘ফ্রি অ্যান্টিভাইরাস’ খোঁজ করলে অসংখ্য ভুয়া সফটওয়্যার পাবেন, যা আপনার ডিভাইসের জন্য ক্ষতির কারণ হতে পারে। গুগলে খোঁজ করে আসল-নকল বের করা অনেকের জন্য কঠিন।

ছাড় পেতে কুপন: অনেকেই কেনাকাটার জন্য ছাড় পেতে গুগলে নানা কুপনের খোঁজ করেন। এ ধরনের কুপন খোঁজ করতে গেলে আপনি ভুয়া কুপনের চক্করে পড়ে ভুয়া সাইটে চলে যাবেন। এখান থেকে আপনার কার্ডের তথ্য চুরি হয়ে যেতে পারে। তাই গুগলে ছাড় খোঁজা বন্ধ করুন।

Check Also

মোবাইল ফোনের কারণে কি ক্যান্সার হতে পারে?

না, আজ পর্যন্ত কোনো বৈজ্ঞানিক পরীক্ষায় প্রমাণ করা যায় নি যে মোবাইল এর কারণে ক্যানসার …