Friday , October 18 2019
Home / Facebook / যেভাবে আমি ফেসবুক পেজ লাইক বাড়িয়েছি: আপনি ও পারবেন

যেভাবে আমি ফেসবুক পেজ লাইক বাড়িয়েছি: আপনি ও পারবেন

বর্তমান বিশ্বের সর্বাধিক জনপ্রিয় এবং সবচেয়ে ব্যবহৃত সোসাল মিডিয়া সাইট কোনটি? আমার মনে হয় কোন অপশন ছাড়াই যে কেউ এর উত্তর বলতে পারবে। “ফেসবুক” ইয়েস,  ফেসবুকই বর্তমান বিশ্বের সর্বাধিক জনপ্রিয় এবং সবচেয়ে ব্যবহৃত সোসাল মিডিয়া সাইট যেখানে সব বয়সী এবং সব পেশার মানুষ পাওয়া যায়। যদি আপনার একটি পারসনাল ব্লগ, বিজনেস সাইট বা ই-কমার্স সাইট থাকে এবং সেটিকে কোন সোসাল মিডিয়াতে প্রোমোট করতে চান তাহলে ফেসবুকের কোন বিকল্প নেই। আর আপনার প্রত্যাশিত মার্কেট যদি বাংলাদেশ হয় তাহলে আপনার ফেসবুক ছাড়া অন্য কোন অপশন নেই।

যাইহোক, আমাদের আলোচনার বিষয় হলো “কিভাবে ———————“। গুগলে সার্স করলে এই িবষয়ে আপনি অনেক টিপস পাবেন তবুও আমি, আমার ব্যক্তিগত অভিজ্ঞতা থেকে কিছু টিপস এখানে শেয়ার করছি এবং আশা করি টিউনটি পড়ে শেষ করলে আপনি অবশ্যই এমন কিছু টিপস পাবেন যা আপনার ফেসবুক পেজ লাইক বাড়াতে সাহায্য করবে।

ফেইসবুক পেইজ লাইক কীভাবে বাড়ানো যায়: ফ্রি ট্রিকস

১. প্রথমেই আপনার ফ্যান পেজটিকে কমপ্লিট করুন। প্রফেশনাল হেডার, নাম, ফোন, ওয়েব সাইট, সঠিক ডেসক্রিপশন ও রিলেটেড  কিওয়ার্ড ব্যবহার করে পেজটিকে সার্স ইঞ্জিন ফ্রেন্ডলি করুন।

২. যদি দেখেন আপনার পেজের কোন টিউন অনেক বেশি লাইক, টিউমেন্ট বা শেয়ার পাচ্ছে তাহলে সেই টিউনকিকে পিন করে রাখুন। যখন নতুন কোন ভিজিটর আপনার পেজ ভিজিঠ করবে, প্রথমেই সেই টিউনকিকে দেখতে পাবে। যদি কোন ভিজিটর আপনার টিউনকিকে মজাদার বা গুরুত্তপূর্ন মনে করে তাহলে সেই টিউনকিকে লাইক,  শেয়ার বা টিউমেন্ট করবে যা আপনার পেজের ভিজিবিলিটি বাড়াবে এবং নতুন লাইক পেতে সাহায্য করবে।

৩. কোয়ালিটির উপর কোন টিপস নেই। শুধুমাত্র টক্সট টিউন না করে তার সাথে রিলেটেড ইমেজ এড করুন। ফানি ভিডিও এবং ইমেজ ক্যাপশন ব্যবহার করুন। শধুমাত্র প্রোমোশনাল টিউন না করে তার সাথে অন্যদের টিউন শেয়ার করুন। ২০% প্রোমোশনাল টিউন এবং ৮০% ফানি টিউন শেয়ার করুন।

আপনার কি মনে হয়? এই টিপস গুলো আপনার ফেইসবুক পেইজ লাইক বাড়াতে সাহায্য করবে?

৪. ফেসবুক Insights ব্যবহার করে দেখুন কোন ধরনের টিউন গুলো বেশি লাইক,  শেয়ার বা টিউমেন্ট পাচ্ছে? সেই ধরনের টিউন বেশি বেশি শেয়ার করুন।

৫. ফেসবুকে হাজার হাজার গ্রুপ আছে সেখান থেকে রিলেটেড গ্রুপগুলো বের করুন এবং জয়েন করুন। তারপর সেই গ্রুপ গুলোতে কন্ট্রিবিউট করুন।

৬. আপনার সাইটে লাইভ ফেসবুক মেসেঞ্জার এড করুন এবং কাস্টোমার সেবা দিন।

এছাড়াও অনেক ট্রিকস আছে যা আপনার পেজের লাইক বাড়াতেসাহায্য করবে। আসলে ফেসবুক পেজের লাইক তাড়াতারি বাড়ানোর জন্য কোন কার্যকর ফ্রী টিপস নেই। কিছু পেইড এবং কার্যকর টিপস আছে যা ব্যবহার করে আপনি আনলিমিটেট লাইক পেতে পারেন।

ফেইসবুক পেইজ লাইক কীভাবে বাড়ানো যায়: পেইড ট্রিকস

১. ফেসবুক এড ব্যবহার করে আপনি হাজার হাজার লাইক পেতে পারেন। এটি সবচেয়ে কার্যকর উপাই যা আপনাকে চাহিদামতো যেকোন স্থান থেকে লাইক পেতে সাহায্য করবে। ফেসবুক এড কিছুটা ব্যয়বহুল। আপনার বাজেট যদি কম হয় তাহলে নিচের ট্রিকসটি ব্যবহার করে দেখতে পারেন।

২. buy Facebook page likes গুগলে সার্স করলে আপনি হাজারো সাইট পাবেন যারা ফেসবুক লাইক সেল করে। আপনি কোন নির্ভরযোগ্য সাইট থেকে ফেসবুক লাইক কিনতে পারেন।

সোসাল মিডিয়া অনেকটা হুজুগে মিডিয়া যা কোন সাইন্স মেনে চলেনা। আপনার ফেসবুক পেজে যত বেশি লাইক থাকবে, ততো বেশি লাইক পাবেন। যদি আপনার ফেসবুক পেজে কম লাইক থাকে তাহলে কেউ আপনার পেজ লাইক করবেনা।

Check Also

নির্দিষ্ট সময়ে পিসিকে যেভাবে অটো শাট ডাউন করবেন

বর্তমান যুগ অটোমোশনের যুগ। কম্পিউটারের প্রায় সব কাজকেই এখন অটোমোশনের আওতায় নিয়ে আশাকরি এবং বন্ধ …

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *