Saturday , November 16 2019
Home / মোবাইল / মাত্র দুই মিনিটে নকল স্যামসাং ফোন চেনার উপায়

মাত্র দুই মিনিটে নকল স্যামসাং ফোন চেনার উপায়

স্মার্ট ফোনের দুনিয়ায় কোন ফোনটি আসল আর কোনটি নকল চেনা খুবই দুষ্কর। বিভিন্ন বাজার এবং অনলাইন কেনাকাটার ওয়েবসাইটে দেদারসে বিক্রি হচ্ছে নকল ফোন কিন্তু চেনাই যায় না কোনটি স্যামসাংয়ের নকল স্মার্টফোন। দামি স্মার্টফোন গুলোর নকলই মূলত দেশের বাজারে ছড়িয়ে পড়েছে। বিশেষ করে অ্যাপলের আইফোন এবং স্যামসাংয়ের বিভিন্ন মডেলের নকল ফোন প্রকাশ্যে, এমনকি নকল ঘোষণা দিয়েই বিক্রি হচ্ছে। নকল হওয়া স্মার্টফোনের ক্ষেত্রে স্যামসাংয়ের ফোনের সংখ্যাই বেশি। তবে সনি ও এইচটিসির দু-একটি মডেলের স্মার্টফোনের নকলও বাজারে দেখা যায়।

নকল স্যামসাং ফোন যেভাবে চিনবেন?

পর্দার চারপাশে একটি কালো আকৃতির খালি অংশ থাকে।
আসল স্মার্টফোনের হোম বাটনটি পর্দার নিচে খুব কাছাকাছি থাকবে। নকলগুলোতে একটু নিচে থাকে, যা খেয়াল না করলে বোঝা যায় না।
নকল ফোনে স্যামসাংয়ের লোগোতে নখ বা অন্য কিছু দিয়ে আঁচড় কাটলে সেটি উঠে যায়।
নকল স্মার্টফোনের প্যাকেটের সঙ্গে সাধারণত একটি ফ্লিপ কভার বিনা মূল্যে দেওয়া হয়, যা আসল ফোনের সঙ্গে থাকে না।

ওপরের পদ্ধতিগুলো প্রয়োগ করেও যদি বুঝতে না পারেন যে সেটি আসল না নকল ফোন সে ক্ষেত্রে ‘এলসিডি টেস্ট’ করে নিতে পারেন। ফোনটিতে *#০*# চাপুন। ফোন আসল হলে সঙ্গে সঙ্গে পর্দায় এলসিডি টেস্ট দেখা যাবে। নকল সেটে এটি কখনোই আসবে না।
আসল ফোনে *#১২৩৪# চাপলে ভার্সন এপি, সিপি ও সিএসসি সিরিয়াল নম্বর, *#০ *# চাপলে জেনারেল টেস্ট মোড এবং *# ০২২৮# দিয়ে ব্যাটারি স্ট্যাটাস দেখা যাবে। নকল ফোনে এসব ‘কোড’ কাজ করে না।
কোন সমস্যা থাকলে টিউমেন্ট করতে ভুলবেন না প্লিস। ভালো থাকুন সুস্থ থাকুন ধন্যবাদ।

Check Also

ফোল্ডিং ফোন আনল নকিয়া

বাংলাদেশের বাজারে ফ্লিপ ফোন বিক্রির ঘোষণা দিল নকিয়ার মালিকানাধীন প্রতিষ্ঠান এইচএমডি গ্লোবাল। ফোনটির মডেল নকিয়া …