Powered by Ajaxy
Jan 21, 2021
341 Views
Comments Off on ল্যাপটপের ব্যাটারি ব্যাকআপ বেশি পাওয়ার কৌশল | Increase Laptop Battery Backup

ল্যাপটপের ব্যাটারি ব্যাকআপ বেশি পাওয়ার কৌশল | Increase Laptop Battery Backup

Written by

কেমন আসেন সবাই?
আশা করি সবাই ভাল আছেন।

আজকে আপনাদের মাঝে আরেকটি গুরুত্বপূর্ণ বিষয় শেয়ার করব।

আজকে আপনাদের মাঝে শেয়ার করবো, ল্যাপটপ এর ব্যাটারি ভাল ব্যাকআপ পাওয়ার কৌশল ও ল্যাপটপ এর ব্যাটারি ভাল রাখার উপায়।

আমরা যারা ল্যাপটপ ব্যাবহার করি,অনেকে চার্যে লাগিয়ে ব্যাবহার করি এবং আমাদের ব্যাটারি ভাল রাখার কোনো কথা মনে ই পড়ে না। ভাবুন যদি টানা ১২ ঘন্টা বিদ্যুৎ না থাকে, কেমন হবে। জরুরি কোন কারনে তো এমন হতে ই পারে। এজন্য দরকার ল্যাপটপ এর ব্যাটারি ব্যাকআপ টা ঠিক রাখা। যাতে আপনি বিদ্যুৎ ছাড়াই দীর্ঘক্ষন ব্যাবহার করতে পারেন। কিছু দিকে লক্ষন রেখে ল্যাপটপ ব্যাবহার করলে আপনি ভাল ব্যাকআপ পাবেন ল্যাপটপ এর ব্যাটারির।

কথা না বাড়িয়ে এবার শুরু করা যাক।

ল্যাপটপ এর ব্যাটারি ভাল ব্যাকআপ এর জন্য যে বিষয় টা গুরুত্বপূর্ণ সেটা হলো ল্যাপটপ এর ব্রাইটনেস কম রাখুন।

ব্রাইটনেস অনেক বেশি চার্য টেনে নেয়, এজন্য আপনি যখন বিদ্যুৎ ছাড়া ব্যাটারির মাধ্যমে ল্যাপটপ ব্যাবহার করবেন।
তখন যতটা পারেন ল্যাপটপ এর ব্রাইটনেস কমে ব্যাবহার করুন।এতে ল্যাপটপ এর চার্য অনেক বেশি থাকবে ও ভাল ব্যাকআপ পাবেন ল্যাপটপ এর ব্যাটারির।

অব্যবহৃত ফিচার বন্ধ করুন

ল্যাপটপের ওয়াইফাই, ব্লুটুথ, এবং গ্রাফিক্স কার্ড যখন আপনার দরকার হয়না তখন এগুলো বন্ধ করে রাখুন। বিভিন্ন ল্যাপটপে ওয়াইফাই এবং ব্লুটুথ বন্ধ করার আলাদা বাটন/শর্টকাট থাকে। এছাড়া উচ্চক্ষমতা সম্পন্ন ল্যাপটপে যখন আপনার ডেডিকেটেড গ্রাফিক্স কার্ড দরকার হয়না, তখন সাময়িকভাবে জিপিইউ ডিজ্যাবল করে রাখা যায়। এমতাবস্থায় সাধারণ কাজ যেমন এমএস ওয়ার্ডে লেখা, ইন্টারনেট ব্রাউজিং প্রভৃতি কোনো প্রকার সমস্যা ছাড়াই চালিয়ে নেয়া যায়। কারণ তখন পিসি তার প্রসেসরের বিল্ট-ইন গ্রাফিক্স চিপ ব্যবহার করে।

অপ্রয়োজনীয় অ্যাপ বন্ধ রাখুন

আগেকার দিনে যখন পিসিতে ২জিবি র‍্যাম থাকত, তখন খুব বেশি সফটওয়্যার একত্রে চালানো যেতনা- কারণ তাতে কম্পিউটার স্লো হয়ে যেত। কিন্তু এখন ৪জিবি বা তারও বেশি র‍্যাম সচরাচর হয়ে যাওয়ায় আমরা কাজে না লাগলেও বিভিন্ন অ্যাপ চালু করে রাখি। বিভিন্ন ব্রাউজার উইন্ডো, লেখার সফটওয়্যার, স্ক্রিনশট নেয়ার অ্যাপ, মিডিয়া প্লেয়ার, ফটোশপ প্রভৃতি অ্যাপ্লিকেশন প্রায়ই মিনিমাইজ করা থাকে যা চুপচাপ র‍্যাম তো দখল করেই, ব্যাটারিও খরচ করে। সুতরাং যখন আপনার ব্যাটারির চার্জ বাঁচাতে হবে, তখন অপ্রয়োজনে কোনো অ্যাপ চালু রাখবেন না।

পাওয়ার সেভিং মুড চালু করুন

যখন আপনার ল্যাপটপের চার্জ সর্বোচ্চ সময় ধরে রাখার দরকার পড়বে, তখন সোজা এর পাওয়ার সেভিং মুড চালু করে নিন। আপনি যে কোম্পানির/অপারেটিং সিস্টেমের ল্যাপটপ চালান না কেন, এতে পাওয়ার সেভিং/ম্যানেজমেন্ট অপশন অবশ্যই আছে। আপনার কাজ হবে শুধু সঠিক পদ্ধতিটি জেনে নেয়া। ব্যাস, ল্যাপটপের ক্ষমতা অনুযায়ী সর্বোচ্চ সময় ব্যাটারি ব্যাকআপ পাবেন।

এসএসডি স্টোরেজ ব্যবহার করুন

সাধারণ হার্ড ডিস্কের চেয়ে এসএসডি স্টোরেজ দ্রুত কাজ করে এবং কম বিদ্যুৎ খরচ করে। সুতরাং ল্যাপটপের হার্ডডিস্ক বদলে এসএসডি লাগিয়ে নিলেও এর পারফরমেন্স ও ব্যাটারি ব্যাকআপ বৃদ্ধি করতে পারেন।

বেশি ব্যাটারি ব্যাকআপ দিতে সক্ষম এমন ল্যাপটপ কিনুন

আপনি যতই টিপস/ট্রিকস অনুসরণ করুন না কেন, আপনার ল্যাপটপের ব্যাটারিতে যদি ধারণক্ষমতা কম থাকে, তাহলে এর কাছ থেকে দীর্ঘক্ষণ ব্যাকআপ আশা করে কোনো লাভ নেই। সুতরাং আপনার যদি বেশিক্ষণ ব্যাটারি ব্যাকআপ দরকার হয়, তাহলে এমন ল্যাপটপ কিনুন, যাতে উচ্চক্ষমতা সম্পন্ন ব্যাটারি দেয়া আছে। এমন একটি ল্যাপটপ হতে পারে ASUS ZenBook UX430UA অথবা আসুস জেনবুক ফ্লিপ এস ল্যাপটপ, যাতে ৯ থেকে ১১ ঘন্টা ব্যাটারি ব্যাকআপ পাওয়া যাবে। এগুলো বাংলাদেশেই কিনতে পাবেন।

Article Categories:
Computer

Comments are closed.