Powered by Ajaxy
Jan 8, 2021
425 Views
Comments Off on কি কি বিষয় লক্ষ্য রেখে নতুন মোবাইল কেনা উচিৎ

কি কি বিষয় লক্ষ্য রেখে নতুন মোবাইল কেনা উচিৎ

Written by

এই সময়ে আমরা সবাই আমাদের স্মার্টফোনের মাধ্যমেই সব কাজ করে থাকি। আমরা আমাদের রোজকার ব্যাবহারের সব কাজ থেকে শুরু করে সোশাল মিডিয়া অ্যাক্টিভেটি আর সব কিছুই ফোনে করি। এমনকি ব্যাঙ্কের কাজও এখন আমরা আমাদের স্মার্টফোনেই করতে পছন্দ করি। আর যারা ছবি তুলতে ভালবাসে কিন্তু বড় ক্যামেরা বা DSLR কেনা সম্ভব হচ্ছে না তারাও এখনকার ফোনের দারুন সব ক্যামেরার মাধ্যমে দারুন ফটোগ্রাফি করে থাকেন। মানে সোজা কথায় এখন এক একটি স্মার্টফোন যে কোন জিনিসের সম্পূর্ণ প্যাকেজ হিসাবে এসেছে।

স্মার্ট ফোন কেনার কথা ভাবছেন তবে আপনাকে অবশ্যই এই ১০টি বিষয় মাথায় রাখতে হবে।

মোবাইলের মুল্য

মোবাইল ফোন কেনার ক্ষেত্রে মুল্য ও মডেল সম্নয় করা সবচেয়ে বড় বিষয়। তাই এই দুটি বিষয় নিয়ে সঠিক সিদ্ধান্ত নিতে হবে।

ক্যামেরা

এখন ফোন কেনার আগে ফোনের ক্যামেরা কত আমরা তা দেখে নি। আসলে ফোনের ক্যামেরা কেমন হবে তা তার লেন্স আর মেগাপিক্সলা আর রেজিলিউশানের ওপরে নির্ভর করে।

তাই ফোন কেনার আগে আর যদি আপনাদের ফোনের ক্যামেরা বা ক্যামেরা দরকারি হয় তবে ফোন কেনার আগে ফোনের ক্যামেরার ডিটেল দেখে নিতে ভুলবেন না।

অপারেটিং সিস্টেম

ফোনের কেনার সময়ে ফোনের অপারেটিং সিস্টেমও দেখা দরকার ফোনের অপয়ারেটিং সিস্টেম ফোনের অত্যন্ত দরকারি বিষয়। ফোনের অপারেটিং সিস্টেম অ্যান্ড্রয়েড বা iOS হয় আর যে ফোনই কিনুন দেখে নেবেন যে ফোনের অপারেটিং সিস্টেম যেন লেটেস্ট ভার্সানে থাকে।

পর্দার আকার
এখন বড় স্ক্রিনের মোবাইল বেশি জনপ্রিয়। তবে সহজে বহন করতে চাইলে ছোট পর্দার মোবাইল নেওয়া উচিত। চার ইঞ্চি বা সাড়ে চার ইঞ্চি বা পাঁচ ইঞ্চি পর্দার মোবাইল ফোনেরও বেশ চাহিদা রয়েছে।।

অপারেটিং সিস্টেম
মৌলিক কয়েকটি অপারেটিং সিস্টেম রয়েছে।তাদের মধ্যে অ্যান্ড্রয়েড সবচেয়ে জনপ্রিয় ও বেশী সুবধা সম্বলিত সিস্টেম।

ব্যাটারির শক্তি
ব্যাটারির শক্তি নির্ধারিত হয় মোবাইল ফোনটির ডিসপ্লের ও তার কার্যক্ষমতার ওপর ভিত্তি করে। তবে বড় মাপের স্ক্রিনের মোবাইল বেশী শক্তি ক্ষয় করে। তাই শক্তিশালী ব্যাটারি প্রয়োজন হবে মোবাইলটি অনেক সময় ধরে চালু রাখার জন্য।

RAM ও প্রসেসর :

ফোনের কার্যক্রমে দ্রুততা দেবে RAM, ফোন কিনতে বেশ কিছু অর্থ ব্যয় করলে ২ জিবি RAM যথেষ্ট,ভাল গেম খেলতে গেলে আপনাকে অবশ্যই ২ জিবি র‌্যাম নিলে ভাল হবে।তবে ১ জিবি তেও খারাপ নয়।

ক্যামেরা রেজ্যুলেশন:   

বিষয়টি বেশী গুরুত্বপূর্ণ। কারণ ভালো মানের ছবি তোলার জন্য মোবাইল ফোনের ক্যামেরা রেজ্যুলেশন ভাল দরকার।

পপুলার রিভিউ ও রেটিং সাইট ব্যবহার করুন
ইন্টারনেট থাকলে নানা সাইটে ঢুঁ মারতেই হয়। পপুলার রিভিউ ও রেটিং সাইটে ঘোরাফেরা করবেন। তাহলে মোবাইলটির ভাল মন্দ জানতে পারবেন।

ডিজাইন নিয়ে একটু চিন্তা করুন
স্মার্ট ফোনের ক্ষেত্রে ডিজাইনটি সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। এ বিষয়ে কারো কাছ থেকে পরামর্শ নেওয়ার কিছু নেই। এটা একান্ত নিজের রুচির ব্যাপার। বাজারের সব স্মার্ট ফোনের নজরকাড়া ডিজাইন রয়েছে। আবার বিভিন্ন কেস রয়েছে ফোনটিকে আরো আকর্ষণীয় করার জন্য। কাজেই নিজের ব্যক্তিগত চাহিদা এবং রুচি অনুযায়ী ডিজাইন পছন্দ করাই ভালো।

ওজন এবং অনুভূতি
মোবাইল ফোনসেটের এ বৈশিষ্ট্য নিয়ে কেউ তেমন মাথা ঘামায় না। অনেক ফোন আছে যা পকেটে থাকলে আপনি বুঝতেই পারবেন না যে কিছু একটা রয়েছে। মোবাইল ফোনসেট যত বড় হয় সাধারণত এর ওজনও তত বেশি হয়। তবে এসব দেখার আগে খেয়াল করবেন ফোনসেটে ব্যাটারি লাগানো রয়েছে কি না। কারণ ব্যাটারির ওজনটিও বেশ হয়।

ডিসপ্লের গুণগত মান
পর্দার গুণগত মান অনেক প্রয়োজনীয় বিষয়। সবচেয়ে ভালো মানের ডিসপ্লে ১০৮০পি (১৯২০ x ১০৮০ পিক্সেলস)। তবে এই ডিসপ্লেযুক্ত ফোনের দামটিও বেশ চড়া হবে। খেয়াল করে দেখতে হবে ভিন্ন ভিন্ন কোণ থেকে দেখলে ছবি পরিষ্কার দেখা যায় কি না। সাধারণ মানের মোবাইলের ডিসপ্লে ৭২০পি-এর কম হয়ে থাকে।=

অবশ্যই বন্ধুদের সাথে আলোচনা করে নিন আপনি যে মোবাইল কেনবেন সেটির সম্পর্কে তাহলে অনেক তথ্য পেতে পারেন।

Comments are closed.