Oct 31, 2018
19 Views

৭০ ঘন্টার ভিডিও স্টোর করা যাবে পেনড্রাইভে

Written by

এক সময় কম্পিউটারের ফ্লপি ডিস্কে ১.৪৪ এমবি জায়গায় স্টোর করে রাখা হত নিদেনপক্ষে একখানি পাসপোর্ট সাইজ ছবি। সাইজ একটু ছোট হলে দুটি ছবিও রাখা যেত। ক্রমে সিডিতে রাইট করার চল হল। সেখান থেকে ডিভিডি। সে সময়ও পেন ড্রাইভের চল ছিল। তবে একটু বেশি স্পেসযুক্ত পেন ড্রাইভের দাম সাধারণের আয়ত্তের মধ্যে ছিল না। ধীরে ধীরে প্রযুক্তির বিবর্তনের সাথে সাথে পেন ড্রাইভের দামও যেমন কমল, স্পেসও তেমন বাড়ল। এখন তো ১২৮ জিবি বা ২৫৬ জিবি স্পেসের পেন ড্রাইভ প্রায়ই দেখা যাচ্ছে। কিংসটন সম্প্রতি সব পেন ড্রাইভকে টেক্কা দিয়ে ২ টেরাবাইট পেনড্রাইভ বাজারে আনল। এতে এক্সটার্নাল হার্ডডিস্কের মতো আলাদা চার্জ করার প্রয়োজন নেই। শুধুমাত্র ইউএসবি পোর্টে কানেক্ট করলেই হল। এ নাম দেয়া হয়েছে ডেটা ট্রাভেলার আল্টিমেট জেনারেশন টেরাবাইট। ফ্ল্যাশ ড্রাইভটি USB 3.1 জেন 1 সাপোর্ট রয়েছে সাথে। প্রশ্ন আসতেই পরে এতে কী কী স্টোর করা যাবে? কতটা স্টোর করা যাবে? স্পেস তো আগেই জানেন। এ বার স্টোরেজের নমুনা শুনুন। ফুল HD 4K ভিডিও ৭০ ঘণ্টা পর্যন্ত স্টোর করা যাবে। ড্রাইভটি তৈরি করা হয়েছে জিঙ্ক-অ্যালয় মেটাল কেসিংয়ে। যাতে হঠাৎ করে আসা কোনো আঘাত সহজে সহ্য করতে পারে। আগামী মাস থেকে বাজারে এই পেন ড্রাইভ চলে আসবে বলে সংস্থা সূত্রে জানানো হয়েছে। 1TB এবং 2TB ক্যাপাসিটি-র দুটি পেনড্রাইভই বাজারে আসবে। এর সাথে পাঁচ বছরের ওয়ারেন্টি এবং বিনামূল্যে টেকনিকাল সাপোর্ট মিলবে।

উইন্ডোজ ১০, ৮.১, ৮, ৭ (সার্ভিস প্যাক ওয়ান), ম্যাক OS v.10.9.x+, লিনাক্স v.2.6.x+, ক্রোম অপারেটিং সিস্টেমে এই পেনড্রাইভ কাজ করবে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *